হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন বেড়েছে ! অভিযোগ বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোটের

0
1176

হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন বেড়েছে ! অভিযোগ বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোটের

বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন বেড়েছে এমন অভিযোগ এনে বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব এডভোকেট গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেছেন, ২০১৯ সালে যেখানে হত্যার শিকার হয়েছিলো ১০৮জন, সেখানে চলতি বছরের ছয় মাসে তা দাঁড়িয়েছে ৭২জনে। পাশাপাশি বাড়ি-ঘর দখল, ভাংচুর, জমি দখল, দেশ ত্যাগে বাধ্য করা ইত্যাদি আরও বহু ঘটনা ঘটেছে বলেও অভিযোগ তুলে ধরেন এই নেতা। এ সংক্রান্ত এক প্রতিবেদন প্রকাশ করতে বৃস্পতিবার রাজধানীর সেগুন বাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে সাংবাদিক বৈঠক ডাকেন। সেখানে তুলে ধরেন তার লিখিত বক্তব্য। তাতে অভিযোগ করা হয়, জাতীয় সংসদে যে ক’জন হিন্দু প্রতিনিধি রয়েছেন, তারা হিন্দুদের কথা বলেন না। হিন্দু ভোটে নির্বাচিত ৫০ জন প্রতিনিধি সংসদে থাকলে এবং সংখ্যা মন্ত্রক থাকলে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর এতটা অত্যাচার হতো না বলে দাবি করেন গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক। তা হলেই নির্যাতন মুক্ত থাকবেন হিন্দু সম্প্রদায়। গোবিন্দ বাবু বলেন, বাংলাদেশে একটি স্বাধান দেশ। এটা আমার জন্মভূমি । এদেশ ছেড়ে আমরা কোথাও যাবো না। এখানে থেকেই আমাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করবো। স্বাধীন বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায় কখনই স্বাধীনতার স্বাদ পায়নি এমন অভিযোগ করে, গোবিন্দ বাবু বলেন, ২০০১ সালে নির্বচন পরবর্তী ভোলার সহিংস ঘটনায় বিশে^র বিবেকবান মানুষ ধিক্কার জানায়। কিন্তু আজও পর্যন্ত তৎকালীন অপরাধীর একজনও শাস্তির আওতায় আসেনি। হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর সহিংসতা ও নির্যাতন নিরোধে জাতীয় সংসদে ৫০টি আসন নির্ধারণ এবং নির্বাচন ব্যবস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করে কেবল হিন্দুদের ভোটের মাধ্যমে প্রতিনিধি নির্বাচনের ব্যবস্থা করা এবং সংখ্যালঘু মন্ত্রক প্রতিষ্ঠা করা হলে হিন্দু নির্যাতন কমবে। হিন্দু মহাজোটের সভাপতি ডা. বিধান বিহারী গোস্বামী, নির্বাহী সভাপতি এডভোকেট দীনবন্ধু রায়, যুগ্মমহাসচিব সুজন দে, হিন্দু মহিলা জোটের সভাপতি প্রীতিলতা বিশ^াস প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
প্রবাল চৌধুরী ,ঢাকা, NE INDIA NEWS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here